Anudhyan Mass Communication and Journalism
University of Rajshahi
A practice news portal of Department of Mass Communication & Journalism of University of Rajshahi
শিরোনাম
পরীক্ষার সাত মাস পরেও ফল প্রকাশ না হওয়ার প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থীরা।গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষাক্রম বিষয়ে আলোচনারাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক নিউজলেটার বিদ্যাবার্তা’র দ্বিতীয় সংখ্যা প্রকাশিত হয়েছেতিস্তা নদীতে খনন ও বাঁধ নির্মাণের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত রংপুর বিভাগের শিক্ষার্থীরারাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বষের্র ভর্তি-পরীক্ষা আগামী ২০-২২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে

‘বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই সমাজে ধর্ষণ বেড়েছে‘

আহমেদ ফরিদ

অনুধ্যান

প্রকাশিত : ০৫:৪৩ পিএম, ১৩ মে ২০১৭ শনিবার

‘বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই সমাজে ধর্ষণ বেড়েছে‘

‘বিচারহীনতার সংস্কৃতির কারণেই সমাজে ধর্ষণ বেড়েছে‘

আহমেদ ফরিদ: ‘একজন ধর্ষক যখন কাউকে ধর্ষণ করছে তখন সে জেনেই করছে যে তার পেছনে একটা শক্তি রয়েছে। হয়তো যে ধর্ষিত হচ্ছে সে পুলিশের কাছে যাবে না বা গেলেও বিচার পাবে না। বিচারহীনতার  সংস্কৃতির  কারণে একজন ধর্ষক বারবার সাহস পাচ্ছে।‘

 রাজধানীর বনানীতে দুই তরুণীসহ সারাদেশে অব্যাহত ধর্ষণের প্রতিবাদ ও জড়িতদের শাস্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এভাবে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।আন্তজার্তিক সম্পর্ক বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদা মিতুল ইভার সঞ্চালনায়  আজ বেলা সাড়ে ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের টুকিটাকি চত্বরে সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে আয়োজিত এই মানববন্ধনে  প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

 এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী আব্দুল মজিদ অন্তর বলেন, ‘ দেশব্যাপী ধর্ষণের মতো জঘন্য ঘটনার প্রতিবাদে আজ আমরা রাস্তায় নেমেছি। যারা এই জঘন্য অপরাধ করেছে এবং যারা অপরাধীদের সাহায্য করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। অর্থের বিনিময়ে তদন্তকার্যকে ব্যাহত করার চেষ্টা যারা  করেছে তাদেরও বিচারের আওতায় আনার জোর দাবি জানাচ্ছি।’

 বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আল আমিন প্রধান তারেক বলেন, ‘ধর্ষণে পোশাক কোনো বিষয় নয়। তার প্রমাণ ওই তিন বছরের শিশু থেকে ষাট বছরের বৃদ্ধাও ধর্ষিত হচ্ছে। একটা ধর্ষণের ঘটনা যখন ঘটে তখন রাষ্ট্রের উচিত জড়িতদের কঠোর শাস্তি দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করা উচিত।’

 মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী কনি ইসলাম,  শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফাবাস্সির হক, অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রাশেদ রিমন প্রমুখ। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোট এতে একাত্মতা ঘোষণা করেছেন।