Anudhyan Mass Communication and Journalism
University of Rajshahi
A practice news portal of Department of Mass Communication & Journalism of University of Rajshahi
শিরোনাম
মার্কেটিং বিভাগে শিক্ষাবৃত্তির জন্য ৫০ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছেন বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী মাহবুবুল আলম রাজাবর্ণিল ও বিচিত্র আয়োজনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নববর্ষ ১৪২৬ উদযাপিত হয়েছেশেষ হলো সপ্তাহব্যাপী ডেটা জার্নালিজম কর্মশালা‘ ডেটা জার্নালিজম ইন নিউজরুম: হাউ টু ইউজ ডেটা ফর এ গুড স্টোরি‘ কর্মশালার পঞ্চম দিনে শিক্ষার্থীরা অনলাইন সংবাদ-সাইট থেকে ডেটা সংগ্রহ, ডেটা তৈরি এবং সে ডেটা আবার নতুন রূপে উপস্থাপন করার কৌশল শিখেছেন

বানভাসী মানুষের পাশে রাবি শিক্ষার্থীরা

অনুধ্যান প্রতিবেদক

অনুধ্যান

প্রকাশিত : ১০:১৮ পিএম, ২ মার্চ ২০১৭ বৃহস্পতিবার

কুড়িগ্রামে বন্যাদুর্গত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

কুড়িগ্রামে বন্যাদুর্গত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

বন্যার কবলে পড় উত্তরাঞ্চলের বেশ কয়েকটি জেলার ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, বসতভিটা ডুবে যায়। কৃষকের মাঠভরা ফসলের পাশাপাশি হারিয়ে যায় মুখের হাসিও। দুর্বিষহ হয়ে উঠে মানুষ-পশুপাখির জীবন। এসময় তাদের মাঝে ত্রাণ নিয়ে হাজির হয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা।

দেশের উত্তরাঞ্চলের এসব মানুষ যখন বেঁচে থাকার তাগিদে সংগ্রামরত তখন বিভিন্ন জায়গা থেকে ত্রাণ পৌঁছাতে শুরু করে। দুর্ভোগের এ চিত্র নাড়া দেয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের। তাই বন্যাকবলিত এলাকায় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে উদ্যোগ নেন তারা।

বেঁচে থাকার লড়াইয়ে  বানভাসী মানুষের

প্রথম দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩০-৩৫ জন শিক্ষার্থী অর্থ সংগ্রহ শুরু করে। পরে ‘বন্যার্তদের পাশে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়’ স্লোগানকে সামনে রেখে ত্রাণ সহায়তায়ে এগিয়ে আসে বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক-রাজনৈতিক সংগঠন।এই উদ্যোগে বসে থাকেন নি শিক্ষকরাও।

যেভাবে শুরু অর্থ সংগ্রহ

উদ্যোক্তাদের একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী আহসান হাবীব রাভী বলেন, বিষয়টি বন্ধুদের কয়েকজনকে জানালে তারাও আগ্রহী হয় এবং গত ২৫ জুলাই আমরা স্যারদের সাথে যোগাযোগ করে কাজ শুরু করি। প্রতিদিনই ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে, আবাসিক হলগুলোতে এবং রাজশাহী নগরীতে টাকা সংগ্রহ করতে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থী একসঙ্গে কাজ করে।

উত্তরাঞ্চলে বন্যার্তদের সাহায্যার্থে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে অর্থ সংগ্রহ করছেন শিক্ষার্থীরা

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি রংপুর মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে কয়েকদিনের জন্য একটি মেডিকেল ক্যাম্প করা হয় বলে জানান আরেক উদ্যোক্তা অশোক চক্রবর্ত্তী জয়।

পাশে ছিলেন শিক্ষকরাও

শিক্ষার্থীদের এমন মহতি উদ্যেগে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও। সার্বিক তত্ত্বাবধায়ন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গোলাম ফারুক সরকার। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শুধু পড়াশোনার মধ্যেই আটকে থাকবে না। তাদের সামাজিক দায়িত্বও পালন করতে হবে। দেশের মানুষ যখন দুর্ভোগের মধ্যে আছে তখন তাদের পাশে দাঁড়ানো সেই দায়িত্বের মধ্যেই পড়ে। সেই জায়গা থেকেই শিক্ষার্থীরা এগিয়ে এসেছে।

কাজ করেছে বিভিন্ন সংগঠনও

বানভাসী এসব মানুষের সাহায্যে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো কাজ করেছে। রাবি ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাঞ্জু বলেন, বন্যার্তদের সাহায্যার্থে শিক্ষার্থীরাই আমাদের উৎসাহ দিয়েছেন। এরপর আমরা নগদ টাকার সঙ্গে বন্যার্তদের হাতে তুলে দিয়েছি খাদ্যসামগ্রী।



সংগ্রহ শেষ ও বিতরণ

এক সপ্তাহ কাজের পর অর্থ সংগ্রহের পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় এক লাখ বিশ হাজার টাকা। যা দিয়ে চিড়া, চিনি, বিস্কুট, মোমবাতি, দিয়াশলাই কেনে তারা। আর এসব নিয়ে গত ১ আগষ্ট আগ ছুটে যান কুড়িগ্রামের বন্যাদুর্গত এলাকায়।

ত্রাণ হাতে বন্যার্তরা

ত্রাণ বিতরণ কাজের অন্যতম উদ্যোক্তা রফিফুল ইসলাম বলেন, “আমরা গিয়েছিলাম মূলত ছোট ছোট চরে, যেখানে সাহায্য খুব একটা পৌঁছায় না। ত্রাণের পাশাপাশি শিক্ষর্থীদের বইও বিতরণ করি আমরা।“

শিক্ষার্থীদের এমন উদ্যেগ থেমে থাকেনি। ত্রাণ বিতরণ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে আবারো অর্থ সংগ্রহ করছেন তারা। যা পুনরায় বন্যা কবলিত এলাকায় পাঠানো হবে।

আতিকুর রহমান ও বিউটি মন্ডল; রাজশাহী

আরো পড়ুন